ইন্টার পরীক্ষা শেষ করে অলস সময় কাটাচ্ছিলাম। হাতে তেমন কাজ নেই বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেওয়া ছাড়া। ঠিক এরকম সময়ে রুবিনা খালা ফোন করে বললেন ঢাকা এসে ঘুরে যা। রুবিনা খালার বাসা ঢাকার ডিওএইচ এস এ। খালার সাথে আমার খুবই ভালো খাতির আছে। খালার বয়স ৩৫ বছর। কিন্তু রুবিনা খালা আমার বন্ধুর মত।সব বিষয় নিয়ে আমরা আলোচনা করি। তো রুবিনা খালার কথা মতো রাতের বাসেই আমি চলে যাই ঢাকা।
রুবিনা খালার ফিগারটা অসাধারন। দেখলে যে কোন ছেলের মাথা খারাপ হয়ে যাবে। আর তিনি সবসময় আধুনিক পোশাক পড়েন। জিন্স টি শার্ট। বাসায় জিন্সের সর্টস কিংবা গ্যাভাডিং এর থ্রি কোর্য়াটার পড়নে থাকে শার্ট। আবার কখনো কোন পার্টিতে গেলে সিফনের শাড়ি এবং স্লিভলেস ব্লাউজ পড়েন।। আমার খালু নেহাল সাহেব প্রায় দেশের বাইরে থাকেন। খালার দুই ছেলেমেয়ে । কিন্তু তাকে দেখে মনে হয় না। খালা লম্বায় প্রায়৫ ফুট ৬ ইঞ্চি। চুল পিঠ ছাড়িয়ে যায় ফর্সা গায়ের রং। বুক দুটা ৩২ সাইজের। তলপেটে সামান্য চর্বি জমেছে। এবার আমি যখন রুবিনা খালার বাসায় তখন বেশ গরম পড়ছিল। তার বাসায় এসি আছে বলে রক্ষা। রুবিনা খালা আমকে দেখে খুব খুশি হলেন। আমাকে জড়িয়ে ধরলেন। তখন তার পড়নে ছিল নীল জিন্সের সর্টস আর একটি সর্ট টী সার্ট। আমি বললাম তোমায়তো খুব সুন্দর লাগছে। তখন তিনি খুশি হয়ে জিজ্ঞেস করলেন সত্যি ভাল লাগছে। আমি বললাম u r looking so hot.. এই কথা শুনে বললেন অনেক হয়েছে, যা এখ ন ফ্রেশ হয়ে নে এখন। বিস্তারিত পড়ুন